1. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১০:০১ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ায় করোনা রোগী বেড়ে যাওয়ার হার উদ্ধমূখী হচ্ছে

  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ২ জুন, ২০২১
  • ২৩৩ মোট ভিউ

নিজ সংবাদ ॥ নমুনা অনুপাতে কুষ্টিয়ায় করোনা রোগী বেড়ে যাওয়ার হার উদ্ধমূখী হচ্ছে। মঙ্গলবার রাত আটটা থেকে গতকাল বুধবার রাত আটটা পর্যন্ত জেলায় আরো ৫৪ জনের শরীরে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ সময়ে মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। যা গত এবছরের মধ্যে জেলায় এটাই সর্বোচ্চ সনাক্ত বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগ। চিকিৎসকরা এ সনাক্তের হারে আতংকিত। তারা বলছেন এভাবে সনাক্তের হার বাড়তে থাকলে ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হবে। এখনই এর লাগাম টেনে ধরতে বড় ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তা না হলে জেলায় মহারামী রূপধারন করতে পারে। গতকাল মোট পরীক্ষার প্রতিবেদনে পজিটিভ শনাক্তের হার ২৬ পয়েন্ট ৯৫ ভাগ।

গতকাল রাত দশটায় জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম এ তথ্যের একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। জেলায় করোনা সনাক্তের হার বৃদ্ধি ও রোধকল্পে করনীয় সম্পর্কে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় সাংবাদিক সম্মেলনের পরবর্তী পদক্ষেপ জানাবেন বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে গতরাতে জানানো হয়েছে।

করোনা কমিটি জানিয়েছে, জেলায় করোনা পজিটিভ রোগী বেড়ে যাচ্ছে। মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে জেলা জুড়ে প্রশাসন কঠোর তদারকি বাড়িয়েছে। একই সাথে পুলিশ প্রশাসনও মাঠে নেমেছে।

সীমান্তবর্তী কুষ্টিয়ায় গত দশ দিন ধরে করোনা রোগী বাড়তির দিকে। এনিয়ে স্বাস্থ্য সংশি¬ষ্টরা জেলায় লকডাউনের সুপারিশ করেছিল। পরে মন্ত্রী পরিষদের সচিব জানিয়েছিলেন, এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসন সিদ্ধান্ত নিতে পারবে। তবে মঙ্গলবার দুপুরে জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির দুই ঘন্টার সভা শেষে জানানো হয়, আপাতত লকডাউন নয়, তবে জন সাধারণকে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এবং নমুনা পরীক্ষার হার বাড়ানোর তাগিদ দেন  জেলা প্রশাসক।

এদিকে মঙ্গলবার জেলায় ৬১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩১ জন পজিটিভ শনাক্ত হন। এরমধ্যে ২৮ জনই সদর উপজেলার। যার ৮০ ভাগই কুষ্টিয়া পৌরসভার বাসিন্দা। গত  রোববার ১৮৪ নমুনা পরীক্ষায় ৩৩ জন, সোমবার ১২১ নমুনা পরীক্ষায় ৩১ জন  পজিটিভ শনাক্ত হয়। জেলায় এযাবত ৫১ হাজার ২১৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে ৫ হাজার ৯জন। মারা গেছেন ১১৪ জন।

মাস্ক পরতে উদাসীন:

বুধবার দুপুরে কুষ্টিয়া শহরের এনএসরোডে ঘুরে দেখা গেছে, অধিকাংশ মানুষ মাস্ক সঠিকভাবে পরিধান করতে উদাসীন। বিশেষ করে সড়কের দুই পাশের দোকানগুলোতে ব্যবসায়ীরা মাস্ক না পরার হার ৭৫ শতাংশের বেশি। ক্রেতাদেরও মাস্ক পড়তে অনিহা। কেউ কেউ বলছেন, গরমে সারাক্ষণ মাস্ক পরে থাকা কষ্টের। তাই মাঝে মাঝে খুলে রাখছেন। শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়, থানামোড় ও বড় বাজার এলাকায় গিয়ে এচিত্র দেখা যায়।

জানতে চাইলে কুষ্টিয়া চেম্বারের সহসভাপতি এসএম কাদেরী শাকিল বলেন, প্রত্যেকে সমিতির নেতাদের ও  দোকানদারদের কঠোরভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এমনকি সারাদিন মাইকে প্রচার করা হয়েছে। সবাই মাস্ক পরে ব্যবসা পরিচালনা করবে। যদি কেউ না করে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা হলে তার দায় সেই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকেই নিতে হবে।

মাঠে নেমেছে প্রশাসন:

বুধবার সকাল থেকে জেলা ও পুলিশ প্রশাসন মাঠে তৎপর হতে দেখা গেছে। শহরের বেশ কয়েকটি প্রবেশ মুখে ট্রাফিক ও থানা পুলিশ গাড়ি থামিয়ে মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করছে। উপজেলা সড়কের মুখে কয়েকজন পুলিশকে গাড়ি থামিয়ে চালক ও যাত্রীদের মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে পরমার্শ দিতে দেখা যায়।

কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট সিরাজুল ইসলাম বলেন, একাধিক ভ্রাম্যমান আদালত জেলায় কাজ করছে। মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে সচেতন করা হচ্ছে। প্রয়োজনে অর্থ দন্ড করা হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Theme Customized By Uttoron Host
You cannot copy content of this page