1. admin@andolonerbazar.com : : admin admin
  2. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
শিরোনাম :
সন্ত্রাসী কার্যক্রম করে কেউ টিকে থাকতে পারবেন না : কামারুল আরেফিন এমপি  মায়ের ভাষার অধিকার ও রাষ্ট্র্রভাষা প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম ছিল বীর বাঙালি জাতির বীরত্বের গৌরবগাঁথা অধ্যায় : ডিসি এহেতেশাম রেজা ২১ কিমি দৌড়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ ইবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত মেহেরপুরে অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস : কুষ্টিয়ায় সমকাল সুহৃদ সমাবেশের আয়োজনে চিত্রাঙ্কন ও কুইজ প্রতিযোগিতা কুমারখালীতে যথাযথ মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কুষ্টিয়া জেলা সমিতি ইউ.এস.এ ইনকের মহান একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন আলমডাঙ্গায় যথাযথ মর্যাদায় আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কালুখালীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

কুষ্টিয়ায় জেলা আওয়ামীলীগের শান্তি সমাবেশ

  • সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৮ জুন, ২০২৩

 

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্রাইসিচের সময় টিসিবি’র মাধমে খাদ্য বিতরণ করেন এবং রেশনের মাধ্যমে চাউল বিতরন করেন। তেমনিভাবে ইউরোপ কান্ট্রিতেগুলোতে জ¦ালানী তেল, গ্যাস ছাড়াও অন্য খাদ্যসামগ্রী বিতরন করলেও সে দেশগুলোর ভয়াবহ অবস্থা। সেই তুলনায় আমরা ভালো আছি। শ্রীলংকাসহ বহির্বিশে^র অন্যান্য রাষ্ট্রের দিকে তাকালে দেখা যায়, আমাদের দেশের চেয়েও ভয়াবহ অবস্থা সেখানে। আমাদের দেশে প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি হলেও তা ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রয়েছে। ক্রয় করতে আমাদের কোন অসুবিধা নেই। বর্তমানে বিএনপি-জামায়াত এসব জিনিস নিয়ে বিভিন্ন মিথ্যা প্রপোগান্ডা করছে। তারা বিভিন্নভাবে আগামী নির্বাচন নিয়ে বাধা সৃষ্টি করছে। আমাদের কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগ অত্যন্ত শক্তিশালী রয়েছে। দলের বিভিন্ন পর্যায়ে ছোটখাটো সমস্যা থাকলে তা মিটিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করলে কোন রকম দুঃচিন্তার কারন হবে না। অনেক নেতাকর্মী আছে তারা বলেন এ সমস্যা ও সমস্যা আছে। এটা তাদের মনের ধারনা। বর্তমান শেখ হাসিনার সরকার দেশে ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। যা বিএনপি জামায়াত সরকারের আমলে হয়নি। তাই তথাকথিত ঐসব নেতাকর্মিদের রাতের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। বিএনপি তিনবার ক্ষমতায় থাকার পর আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসে। এরপর থেকে তাদের মাথা খারাপ হয়ে যায়। আওয়ামীলীগকে নিশ্চিহ্ন করার জন্য উঠেপড়ে লেগে ২০০৪ সালের ২১ আগষ্ট বোমা ও গ্রেনেড হামলা চালায়। দেশের ৬৩ জেলায় একযোগে তারা সিরিজ বোমা হামলা চালায়। বাংলাভাই, জঙ্গিবাদের উত্থান তাদের সময়ে হয়েছিলো। সে সময় মানুষের কোন নিরাপত্তা ছিল না। আওয়ামীলীগ এসে তা নির্মুল করেছে। বিএনপি-জামায়াত আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। তাই আমাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে তাদের সকল অপকর্ম প্রতিহত করতে হবে। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা  দেশের প্রতিটি মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করেছেন। দেশের মানুষকে শান্তিতে রাখতে তিনি বদ্ধ পরিকর। সে জন্য তিনি কোনভাবেই জামায়াত-বিএনপির সন্ত্রাসীদের হাতে আর দেশের মানুষকে তুলে দিতে চান না। অতীতে কোন সময় জামায়াত-বিএনপির কাছে মানুষ নিরাপদ ছিলো না। আর কোনদিন নিরাপদ থাকতেও পারে না। দেশের মানুষকে সাথে নিয়ে এই জামায়াত-বিএনপিকে প্রতিহত করা হবে। অপরদিকে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজগর আলী বলেছেন, দেশদ্রোহী বিএনপি জামায়াত শিবিরের এদেশের মাটিতে কোন ঠাই দেয়া হবে না। আমরা প্রতিশোধ নিই নাই। কিন্তু দেশের জনগন আজ আমাদের সাথে সম্পৃক্ত হয়েছে। এক মাসের দেশের সব সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে। তখন জনগন ঐ বিএনপি জামায়াতের লোকদের বাড়ী থেকে বের করে এনে এ উচিত শিক্ষা দেবে। আমাদের কিছু বলার থাকবে না। বিএনপির সন্ত্রাস  নৈরাজ্যের ও ষড়যন্ত্রমূলক অপরাজনীতির বিরুদ্ধে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সব সময় লড়তে প্রস্তুত। বাংলাদেশে বিএনপি ক্ষমতা থাকাকালীন এদেশের মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারেনি। বিএনপির নৈরাজ্য সন্ত্রাসবাদ মৌলবাদের জবাব দিতে প্রস্তুত আওয়ামীলীগ। দেশে বিএনপি-জামায়াত আবার নৈরাজ্য সন্ত্রাসবাদ করে  দেশকে অস্থিতিশীলতায় করতে চাইলে আওয়ামী লীগ দাঁতভাঙ্গা জবাব দেবে। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ হলো জনগণের দল। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ জনগণের  সেবক হিসেবে ছিলো সব সময় থাকবে। সারা দেশব্যাপী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কর্মসূচি বাস্তবায়নে সব সময় আওয়ামীলীগ মাঠে থাকবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৮জুন) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কুষ্টিয়া শহরের এনএস  রোডের বঙ্গবন্ধু সুপার মার্কেটের সামনে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের এক শান্তি সমাবেশে আওয়ামীলীগের ঐ দুই নেতা এসব কথা বলেন। বিএনপি-জামায়াতের অব্যাহত অবৈধ অগণতান্ত্রিক আন্দোলনের নামে সন্ত্রাস, নৈরাজ্য, অগ্নিসংযোগ, জনগণের জানমালের ক্ষতিসাধন ও দেশকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্তের প্রতিবাদে এই শান্তি সমাবেশ করে কুষ্টিয়া  জেলা আওয়ামীলীগ। এতে সভাপতিত্ব করেন কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান। সমাবেশ পরিচালনা করেন কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজগর আলী। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ডাঃ আ ফ ম আমিনুল হক রতন, কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা, কুষ্টিয়া সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রেজাউল হক, সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আবু তৈয়ব বাদশা, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইয়াসির আরাফাত তুষার, কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান আনিক প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক হাজী তরিকুল ইসলাম মানিক, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক খন্দকার ইকবাল মাহমুদ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোমিনুর রহমান মোমিজ, কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য হাবিবুল হক পুলক, জেলা তাতীলীগের সভাপতি রুহুল আমিন, সাধারন সম্পাদক হারুন অর রশীদ, কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় শ্রমিকলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোঃ মুকুল হোসেন,  জেলা আওয়ামী মৎস্যলীগের সাধারন সম্পাদক সাহেদুল হক শিমুলসহ আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিকলীগ ও মহিলা আওয়ামীলীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Site Customized By NewsTech.Com