1. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০১:১১ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ায় দুই যুবকের রহস্য জনক মৃত্যু

  • সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২
  • ১৪ মোট ভিউ

 

নিজ সংবাদ ॥ গতকাল বৃহস্পতিবার ১৯ শে মে কুষ্টিয়ায় দুই যুবকের রহস্য জনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। কুষ্টিয়া সদর উপজেলার আলামপুর ইউনিয়ন ও আইলচারা ইউনিয়নের  নাজিরপুর-দহকুলা মাঠের মধ্যে রাস্তারপাশ থেকে জীবন (১৫) নামে এক তরুণের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্থানীয় কৃষকরা সকালে মাঠে কাজ করতে যাওয়ার সময় মাঠের মধ্যে একজনকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন। এদিকে মাঠের মধ্যে লাশ পড়ে আছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। পরে মৃতদেহটিকে শনাক্ত করে জীবনের পরিবার। জীবনের পিতার নাম শুকুর আলী। তিনি জানান, আমার ছেলে গতকাল সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। পরে পাশে খোঁজ খবর নিয়েও তাকে কোথাও পাওয়া যায়নি। সকালে শুনতে পায় আমার ছেলের লাশ পড়ে আছে মাঠে। নহতের মা যমুনা খাতুন(৪২) জানায়, ‘গতকাল বুধবার সন্ধার পর জীবন মটর সাইকেল নিয়ে একটু পরেই ঘুড়ে আসছি বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে রাতে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। রাতে আশপাশে সম্ভাব্য জায়গায় খোঁজ করেও জীবনের কোন সন্ধান পায়নি। বৃহষ্পতিবার বেলা ১১টার দিকে সরদারগাড়া মাঠে জীবনের মটরসাইকেল পড়ে আছে বলে লোকমুখে শুনতে পাই। সেখানেই ডোবার পানিতে ডুবে থাকা জীবনের লাশ পাওয়া যায়। জীবনের কপালে আঘাতের চিহ্ন আছে, ঘার মটকানো আছে, আমার ছেলেকে কেউ মেরে পানিতে ঢুবিয়ে রেখেছে। আমি এর বিচার চাই’। নিহতের মামা রুহুল আমীনের অভিযোগ, ‘বেশকিছু দিন ধরে শুনছিলাম, জীবন কিছু সংখ্যক মাদক সেবী কিশোরদের সাথে মেলামেশা করছিলো, জানামতে, এমনিতেই ওর কোন শত্রু ছিলোনা। জীবনকে যেখানে হত্যা করা হয়েছে, সেখানে চেইন ছেড়া একটি হাতঘড়ি এবং একজোড়া স্যান্ডেল পাওয়া গেছে যা জীবনের না। হত্যাকারীরাই জীবনকে হত্যা করার সময় ধ্বস্তাধ্বস্তির করতে গিয়ে পড়ে থাকতে পারে। ওরা জীবনের মটর সাইকেল না নিয়ে ফেলে রেখে গিয়েছে তবে, জীবনের মোবাইল ফোন টা নিয়ে গেছে। এটা একটা পরিকল্পিত হত্যাকান্ড তাতে কোন সন্দেহ নেই। সঠিক তদন্ত করলেই হত্যার রহস্য বেড়িয়ে আসবে।’ এ বিষয় নিয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাব্বিরুল আলম বলেন, কুষ্টিয়ার নজিরপুর এলাকার রাস্তার পাশে একটি মাঠ থেকে একটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে বোঝা যাবে হত্যার মূলকারণ উদঘাটন হবে। অপর দিকে, কুষ্টিয়ার খোকসায় হিরোন শেখ নামের এক কলেজ শিার্থীর রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। নিহত হিরোন উপজেলার শিমুলিয়ার সিংহরিয়া গ্রামের আকমল শেখের ছেলে এবং রাজবাড়ী সরকারী কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের ৩য় বর্ষের শিার্থী। সে খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারে ল্যাব এসিস্টেন্ট হিসেবেও কর্মরত ছিলেন। নিহত হিরোনের মামা নিজাম উদ্দিন জানান, হিরোন লেখাপড়ার পাশাপাশি খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারে ল্যাব এসিস্টেন্ট হিসেবে চাকরি করতেন। গতকাল বুধবার  রাত ১১টার দিকে  স্থানীয় একজনের মাধ্যমে আমরা জানতে পারি হিরোন মারা গেছে এবং তার লাশ খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেড়ে আছে। আমরা তাৎনিক হাসপাতালে এসে মৃত্যুর কারন জানতে চাইলে খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারের মালিক সেলিম রেজা প্রথমে বলেন বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে সেলিমের মৃত্যু হয়েছে। আমাদের সন্দেহ হওয়ায় আমরা আবার সেলিম রেজার কাছে মৃত্যুর সঠিক কারন জানতে চাইলে সে বলে  হিরোন স্টোক করে মারা গেছেন। নিজাম উদ্দিন আরো বলেন, হিরোনের হাতে ও দুই পায়ের নিচেই আঘাতের চিহু রয়েছে। এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। তিনি দাবী করেন খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারে কর্মরত রিসিপসনিস্ট রসিয়া খাতুনের সাথে হিরোনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এ কারনেই তাকে হত্যা করা হয়েছে। এ ব্যপারে খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারের মালিক সেলিম রেজার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া গেছে। খোকসা থানার (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান চৌধুরী জানান,হিরোনের মৃত্যুর বিষয়টি রহস্যজনক হওয়ায় তার মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া  জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলেই প্রকৃত মৃত্যুর রহস্য জানা যাবে বলেও জানান ওসি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Theme Customized By Uttoron Host
You cannot copy content of this page