1. admin@andolonerbazar.com : : admin admin
  2. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :

কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালের ছাদ ভেঙ্গে রোগীর স্বজন আহত, মাথায় ৭ সেলাই

  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২৩

 

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালের তিন নং এসি কেবিনের ছাদ ভেঙ্গে স্টোক করা এক রোগীর স্ত্রীর মাথায় ছাদ ভেঙ্গে আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে । সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কুষ্টিয়া ২৫০ শয্য বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে গত বৃহঃবার রাতে চিকিৎসা নিতে আসেন কুষ্টিয়া ভেড়ামারা কলেজ পাড়ার রিপন আলী শেখ । তিনি হাসপাতালে ভর্তির পর ভালো চিকিৎসালাভের আশায় উঠেন হাসপাতালে তিন নং এসি কেবিনে । কিন্তু গতকাল রবিবার ৯ এপ্রিল সাকাল ১১ টার দিকে ঐ কেবিনের ছাদ ভেঙ্গে রিপন আলী শেখ এর স্ত্রী সিমা খাতুনের মাথার উপর পড়ে এবং তার মাথা কেটে রক্তপাত হতে থাকে । এদিকে বিষয়টিকে ধামাপাচা দিতে হাসপাতালের নার্সরা ঘটনার সাথে সাথে সিমা খাতুনের মাথায় সেলাই দিয়ে পাশে আর একটি কেবিনে স্থানান্তরিত করেন । সেই সাথে তিন নং কেবিনটি পরিস্কার করে তালা বন্ধ করে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ । আহত সিমা খাতুন বলেন, আমার স্বামী হাসপাতালে ভর্তি করার পর একদিন কোন বেড পাই নি । আমরা রাস্তায় থাকার মত ছিলাম । তারপর আমরা যুবলীগের এক নেতা ভাইকে ধরে এই কেবিনটা নিয়েছি । তখন আমাদের কাছ থেকে তিন হাজার টাকাও নিয়েছে । কেবিনে আসার পরে দুই দিন কোন ডাক্তার আমাদের রোগীকে দেখতে আসেনি । আজকে (রবিবার) আমি স্টিার এবং ইন্টার্নি ডাক্তারদের কাছে যাওয়ার পর ডাক্তার মুসা কবির দেখতে এসেছিলো । দেখার পর তিনি আমার স্বামীর ইকো করার জন্য বলেন । আমরা রোগীর ইকো করার জন্য নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতিকালে ছাদ ভেঙ্গে আমার মাথায় পড়ে । আমি গতকাল আমার স্বামীকে ছাদ দেখিয়ে বলেছিলাম এই ছাদ ফাটা আছে, ভেঙ্গে পড়ে যাবে । সিমা খাতুনের ছেলে বলেন, আমার বাবাকে ভর্তি করার দুই দিন কোন ডাক্তার আমার বাবাকে দেখতে আসে নাই । আজকে (রবিবার) সকালে আমি নীচে ইন্টার্নি ডাক্তারের কাছে রিপোর্ট দেখাতে গিয়ে তাদেরকে জানাই আমার বাবাকে গত দুই দিন কোন ডাক্তার দেখতে যায় নাই । থকন তারা বলে একটি ইসিজি করে দেখান আঙ্কেল ঠিক হয়ে যাবে । এর ডাক্তার মুসা কবির এসে দেখে গেেেছন ।  আমি অফিসে ছিলাম । আব্বু আমাকে ফোন দিয়ে জানায় আম্মুর মাথার উপর ছাদ ভেঙ্গে পড়েছে । খবর পেয়ে আমি অফিস থেকে দ্রুত এসে দেখি নার্স এবং কর্তৃপক্ষের লোকজন আম্মুকে ওটিতে নিয়ে গিয়ে সেলাই দিয়েছে । আম্মুর মাথায় ৬ থেকে ৭ টা সেলাই দিয়েছে ।  এই বিষয়ে খোঁজ নিতে গিয়ে দেখা যায় হাসপাতালে তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার রফিকুল ইসলামের রুমের সামনে একজন বসা । তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলে তত্ত্বাবধায়ক অফিসে আসেন নাই । কিন্তু রুম খোলা কেন এই বিষয়ে জানতে চাই বসে থাকা ব্যাক্তি কৌশলে স্থান ত্যাগ করেন । এই বিষয়ে জানতে হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডাক্তার নাসির উদ্দিনের রুমে গেলে তিনি বলেন, খবর শোনার সাথে সাথেই আমি ঐখানে উপস্থিত হই । যে রোগী ছিলো রোগীর কোন সমস্যা হয় নাই । রোগীর সাথে যেই ভদ্র মহিলা ছিলো উনার মাথায় একটু চোট পেয়েছে । আমি তাৎক্ষনিকভাবে রোগীকে ওটিতে পাঠিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি করানো ব্যবস্থা করি । উনি ইতিমধ্যে সবধরণের চিকিৎসা পেয়েছেন । ওখানে যে বিল্ডিংটা আছে, আমি গিয়ে দেখেছি যে প্লাস্টার যেইটা ছিলো সেখান থেকে একটা জায়গা থেকে চাকা মত প্লাস্টার খুলে পড়ে গেছে । সেখান থেকেই উনি মূলত আঘাতটা পেয়েছেন । হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের করণীয় বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক্তার নাসির উদ্দিন বলেন, গণপূর্ত বিভাগ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন । হাসপাতাল ভবন ঝঁকিপূর্ণ কিনা জানতে চাইলে ডাক্তার নাসির উদ্দিন বলেন, কর্তৃপক্ষ ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষনা না করা পর্যন্ত হাসপাতাল ভবন নিরাপদ । সরেজমিনে আরো দেখা যায়, ডাক্তার নাসির উদ্দিন নিজে যেই রুম তার অফিস হিসাবে ব্যবহার করেন সেই রুমের একাধিক জায়গায় ফাটল আছে । এর পর তিন নং এসি কেবিনের গিয়ে দেখা যায়, ছাড়ের প্রায় একফুট জায়গা ধ্বসে পড়েছে এবং কেবিনের টয়লেটের ছাদের ধ্বসে পড়ার স্পষ্ট চিহৃ বিদ্যমান । এছাড়াও টয়লেটের অবস্থা অত্যন্ত অপরিস্কার এবং ব্যবহার অনুপযোগী বললেই চলে । সর্বিক বিষয়ে কুষ্টিয়া ২৫০ শয্য বিশিষ্ট সদর হাসপাতালের আবাসিক ডাক্তার হোসেন ঈমামের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আজকের ঘটনা এটা । এর আগেও এরকম ঘটনা ঘটেছে । আপনারা জানেন অনেক পূরাতন বিল্ডিং । মাঝে মধ্যে এরকম ঘটনা ঘটে । আমরা ততক্ষনাৎ মেরামতের কাজও করি । কিন্তু পুরা হাসপাতালের মেরামতের কাজেও জন্য অত বড় আকারের বাজেট পি ডব্লিউ ডি আমাদের দেয় নাই । আমরা যখন যেইটা ডিমান্ড দেই সেটা কাজ করে দেয় । আমরা ইতিমধ্যে চেকলিস্ট করেছি, কোনটা কোনটা ঝঁকির মধ্যে আছে । আমরা সমস্ত চিঠি গুলো পি ডব্লিউ এর কাছে দিবো । যাতে তারা দ্রুত এগুলো সংস্কারের জন্য পদক্ষেপ নেয় ।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Site Customized By NewsTech.Com