1. admin@andolonerbazar.com : : admin admin
  2. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
শিরোনাম :
জিম্বাবুয়ে সিরিজের শুরুতে থাকবেন না সাকিব দক্ষিণ আফ্রিকায় ম্যান্ডেলা কাপে জিনাতের স্বর্ণ জয় বাংলাদেশের স্পিন বিভাগে পার্থক্য তৈরি করতে চান মুশতাক মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনার মধ্যে ইরানের রাষ্ট্রপতির পাকিস্তান সফর দেশের ইতিহাসে রেকর্ড ১৬ হাজার ২৩৩ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রথম ধাপের উপজেলা ভোট : ৭ চেয়ারম্যান ও ৯ ভাইস চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আমিরের বৈঠক: কাতারের কাছে দীর্ঘমেয়াদি জ্বালানি সহায়তা চায় বাংলাদেশ ফের তাপমাত্রা বাড়ার আভাস দেশি-বিদেশি চক্র নির্বাচিত সরকারকে হটানোর চক্রান্ত করছে : কাদের প্রধানমন্ত্রী ও কাতার আমিরের দ্বিপক্ষীয় বৈঠক, ১০ চুক্তি-সমঝোতা স্মারক সই

খোকসায় ভেজাল গুড়ের কারখানায় নেয়া হচ্ছে না ব্যবস্থা

  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৪

 

খোকসা প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলায়  বহু বছর ধরে ভেজাল গুড়ের কারবার করে আসছে একটি প্রভাবশালী চক্র, তাদের বিরুদ্ধে রয়েছে একাধিক মামলা। হয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। একাধিক বার সীলগালা করা হয়েছে কারখানা। সর্বশেষ  (৩১ শে জুলাই, ২০২১) শনিবার রাতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সবুজ হোসেনের নেতৃত্বে কুষ্টিয়া র?্যাব ১২ এর একটি দল অভিযান চালায়। এবং দুজন আটক করে। এর  আগে (৩রা, এপ্রিল ২০২১ )ইং, তারিখে  এনএসআই’র অনুসন্ধানী দলের অনুসন্ধানের ভিত্তিতে  আখের গুড় তৈরীর কারখানায় অভিযান চালায়  খোকসা উপজলার তৎকালীন  নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইসাহক আলী। নিন্মমানের চিনির সাথে মানব দেহের জন্য ক্ষতিকারক রাসায়নিক দ্রব্য মিশিয়ে ভেজাল আঁখের গুড় তৈরীর সময় হাতেনাতে  আটক করা হয় প্রতিষ্ঠানের প্রধান দিলীপ বিশ্বাস সষ্ঠী ও তার ভাই রাজকুমার বিশ্বাসকে। এবং ভোক্তা অধিকার আইন ২০১৯ এর ৪৩ ধারায় একলাখ টাকা জরিমানা করা হয় এবং একটি মামলা রুজু করা হয়, যার নম্বর ৭।  এছাড়াও ২৭ শে এপ্রিল ২০২০ ইং, দিবাগত রাতে খোকসা থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে  বিশেষ অভিযান চালায় এই ভেজাল গুড়ের কারখানায় এবং সেখানে দেখা যায় নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরীকৃত গুড় টিনের কন্টিনারে সাজিয়ে রাখা হয়েছে পাচার করার জন্য। পরবর্তীতে (২৮ এপ্রিল ২০২০) ইং,  তৎকালীন খোকসা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ জহুরুল আলমের নির্দেশে খোকসা থানার এসআই সোহেল বাদী  হয়ে  ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ (গ), ১ (ক),(খ) ধারায় ৩ দোজালী ব্যবসায়ীকে আসামী করে নিয়মিত মামলা দায়ের করে। মামলার প্রেক্ষিতে খোকসা থানা পুলিশ মামলার ৩ আসামী দোজালী ব্যবসায়ী নিত্য গোপাল বিশ্বাস , দিলীপ বিশ্বাস ষষ্টী এবং শেখ আলমাছ হোসেন কে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করেন। এর পরেও অদৃশ্য শক্তির বলে বারবার পাড় পেয়ে যায় ভেজাল কারবারিরা। এবং পূনরায় শুরু করে তাদের ভেজাল কারবার।  সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, খোকসা উপজেলা  সদরের বাজারের ডাকবাংলো রোডে মেসার্স দিলীপ ট্রেডার্স ও কালীবাড়ি রোডে নিত্য গোপালের ভেজাল গুড়ের কারখানায় চলছে ভেজাল উৎপাদন।  চিনির সাথে নাম মাত্র গুড়ের সংমিশ্রণে মানব দেহের ক্ষতিতকারক রং ক্যামিকেল মিশিয়ে জমাট বাঁধিয়ে বাজারজাত করা হচ্ছে। ২৩ জানুয়ারি মঙ্গলবার এ সকল অভিযোগের প্রেক্ষিতে করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিধান কান্তি হলদার কারখানাগুলো পরিদর্শন করেন,এবং চোখের সামনে অসুস্থকর পরিবেশে ভেজাল গুড় উৎপাদন হচ্ছে।এ বিষয়ে  স্থানীয় সাংবাদিকরা একাধিক সাক্ষী দিলেও  তিনি কোন আইনগত  ব্যবস্থা না করে  অফিসে   কাগজপত্র দেখার কথা বলে চলে আসেন।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Site Customized By NewsTech.Com