1. admin@andolonerbazar.com : : admin admin
  2. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
শিরোনাম :
মেহেরপুর সদর ও মুজিবনগর উপজেলা নির্বাচনে চুড়ান্ত প্রার্থী প্রকাশ চ্যাপম্যান ঝড়ে সমতায় নিউজিল্যান্ড অবিচারের শিকার হয়েছে বার্সা: জাভি মোস্তাফিজ ভাইয়ের প্রতিটা বল দেখি: শরিফুল ইসরায়েলি সেনা ব্যাটালিয়নের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র যুক্ত হবেন ২০ লক্ষাধিক দরিদ্র মানুষ : আগামী বাজেটে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচিতে ১ লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের পরিকল্পনা থাইল্যান্ড যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী সই হবে ৫ চুক্তি-সমঝোতা আরো ৩ দিনের সতর্কবার্তা বাড়তে পারে তাপমাত্রা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য নিরাপদ ও সুন্দর পৃথিবী গড়ে তুলতে চাই: প্রধানমন্ত্রী কুমারখালীতে বৃষ্টির আশায় ইস্তিসকার নামাজ আদায়

খোকসায় গড়াই নদীর পাড়ে আবর্জনা ফেলা বন্ধের ঘোষণা দিলেন পৌর মেয়র

  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৩

 

খোকসা প্রতিনিধি ॥ বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর দাবী মেনে নিয়ে কুষ্টিয়ার খোকসা পৌরসভার (০৪) নং ওয়ার্ডের গড়াই নদীর তীরের জনবসতীপূর্ণ এলাকাতে পৌর আবর্জনা ফেলা বন্ধের ঘোষণা দিলেন পৌর মেয়র তারিকুল ইসলাম তারিক। গত ৩ বছর ধরে উপজেলা সদরের পৌর এলাকার প্রধান বাজারসহ আশেপাশের এলাকার নিত্যকার ময়লা আবর্জনা গড়াই নদী তীরের কালীবাড়ি এলাকায় ফেলা হয়। সেখান থেকে সৃষ্টি হচ্ছে বিকট র্দুগন্ধ। ময়লাতে দেয়া আগুনের ধোঁয়া আর গন্ধে আশেপাশের এলাকার মানুষের জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে । নদী তীরে বর্জ্যর বিশাল স্তুপের আবর্জনা ও পলিথিনসহ নানা ধরনের অপচনশীন দ্রব্য গড়াই নদীর পানিকে দূষিত করছে। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে দীর্ঘদিনের ক্ষোভ চলছিলো। বেশ কয়েকবার মেয়রের কাছে যেয়েও প্রতীকার পায়নি স্থানীয় বাসিন্দারা। স্থানীয় এবং জাতীয় পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হয়েছে বেশ কয়েকবার। মেয়র তারিকুল ইসলাম জানান, ভাগাড়ের জন্য পৌরসভার নিজস্ব জমি না থাকার কারনে ভাগাড় সরিয়ে নিতে পারছিনা । শুক্রবার(১৪ এপ্রিল) সকালে এলাকাবাসীরা আবর্জনা ফেলা বন্ধের দাবিতে আবর্জনার স্তুপের পাশে মানববন্ধন করেন। তারা ময়লার স্তুপে যাবার রাস্তায় একাধিক সিমেন্টের খুটি পুতে দেয়। এছাড়া তারা পরিচ্ছন্ন কর্মীদের গাড়িও ফিরিয়ে দেয়। মানববন্ধন শেষে ময়লা ফেলা বন্ধের দাবিতে পৌর মেয়রের সাথে দেখা করেন। মেয়র সরেজমিনে যেয়ে আলোচনার মাধ্যমে স্থায়ী সমাধানের ব্যাবস্থা করবেন বলে জানান। ১৫ এপ্রিল সকাল ১১ টায় মেয়র সরেজমিনে আসেন। স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে ময়লার স্তুপের পাশে দাঁড়িয়ে কথা বলেন। এসময় সবাই মেয়রের কাছে ময়লার কারনে তাদের সমস্যার কথা আবার তুলে ধরেন। এসময় তাদের মোধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ দেখা যায়। মেয়র তারিকুল ইসলাম এক মাসের সময় চাইলে এলাকাবাসী মেনে নেয়না। এক পর্যায়ে মেয়র তাদের কাছে একদিনের সময় নিয়ে বলেন, আজই এখানে ময়লা ফেলা শেষ, আগামীকাল থেকে আর ময়লা ফেলা হবেনা। এসময় হাতে তালি দিয়ে মেয়রকে ধন্যবাদ জানান সবাই। দীর্ঘদিনের সমস্যার সমাধান হওয়ায় এলাকাবাসীর চোখে মুখে আনন্দের ছাপ ফুটে ওঠে। মিতা রানী ঘোষ বলেন, “এই ময়লার জন্যি সারাদিন নাকে কাপড় বাদে রাখতি হয়। বাচ্চাকাচ্চার অসুখ-বিসুখ সারেই না। মেয়র যে কতা দিলো তার জন্যি আমরা খুশি,কিন্তু কথা না রাখলি আমরা আবার মিছিল করবো, বড় করে করবো আরো” এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে এডভোকেট সুদিপ্ত সিংহ অন্তু মেয়রের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে বলেন,মেয়র মহোদয়কে অসংখ্য ধন্যবাদ। আসলে এলাকার মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ছিলো। আগুনের ধোয়া,ময়লার গন্ধ আর সহ্য করতে পারছিলো না। আমরা এখন থেকে বুক ভরে নি:শাষ নিতে পারবো। মেয়র সাংবাদিকদের বলেন, আমি জনগনের ভোটে নির্বাচিত মেয়র। জনগনের সুখে-দুখে পাশে সবসময় ছিলাম,আছি থাকবো। আমি চাইনা আমার জনগণের কষ্ট হউক। আজই ময়লা ফেলা শেষ,আগামীকাল থেকে আর ময়লা ফেলা হবেনা এখানে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Site Customized By NewsTech.Com