1. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫০ পূর্বাহ্ন

গীতিকার ফজল-এ খোদা আর নেই

  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ৭২ মোট ভিউ

 

ঢাকা অফিস ॥ সর্বজন সমাদৃত দেশের গান ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’র গীতিকবি ফজল-এ খোদা আর নেই। সম্প্রতি বহু কালজয়ী গানের এ গীতিকবি সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হন। সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসা চলছিলো তার। সেখানেই গতকাল রোববার ভোর ৪টায় মৃত্যুবরণ করেন। তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। পরে গতকাল রোববার সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে রাজধানীর রায়ের বাজার বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। এ সময় তার পরিবারের সদস্যও আত্মীয়-স্বজনেরা উপস্থিত ছিলেন। করোনা আক্রান্ত ছিলেন বলে যথারীতি স্বাস্থ্যবিধি মেনেই তাকে সমাহিত করা হয়। এথ্য নিশ্চিত করেছেন ফজল-এ খোদার মেজো ছেলে সজীব ওনাসিস। তিনি জানান, সকালে ফজল-এ-খোদা’র জানাজা নামাজ সম্পন্ন হয়। জানাজা শেষে তার লাশ রায়ের বাজার কবরস্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই পরিবার ও ঘনিষ্ঠজনদের উপস্থিতিতে দাফন সম্পন্ন হয়েছে। ফজল-এ-খোদা কবি ও ছড়াকার হিসেবে নন্দিত। ছড়াকার হিসেবে লেখালেখি শুরু করেছিলেন তিনি। তবে কালজয়ী গানের গীতিকবি হিসেবেই মানুষ তাকে চেনে। দেশাত্মবোধক, আধুনিক ও লোকগানের পাশাপাশি ইসলামিক গান লিখেও তিনি প্রশংসা কুড়িয়েছেন। তার বহু জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছে- ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’, ‘যে দেশেতে শাপলা শালুক ঝিলের জলে ভাসে’, ‘ভালোবাসার মূল্য কতো, আমি কিছু জানি না’, ‘কলসি কাঁধে ঘাটে যায় কোন রূপসী’, ‘বাসন্তী রং শাড়ি পরে কোন রমণী চলে যায়’, ‘আমি প্রদীপের মতো রাত জেগে জেগে’, ‘ভাবনা আমার আহত পাখির মতো’, ‘প্রেমের এক নাম জীবন’, ‘বউ কথা কও পাখির ডাকে ঘুম ভাঙেরে’, ‘খোকন মণি রাগ করে না’ প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। ফজল-এ-খোদা বাংলাদেশ বেতারে গীতিকবি হিসেবে তালিকাভুক্ত হন ১৯৬৩ সালে। ১৯৬৪ সালে টেলিভিশনে গীতিকবি হিসেবে তালিকাভুক্ত হন। ঢাকা বেতারের সাবেক এই আঞ্চলিক পরিচালক শিশু কিশোরদের সংগঠন শাপলা শালুকের আসরের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক। উল্লেখ্য, বিবিসির জরিপে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাংলা গানের তালিকায় সেরা ২০ গানের মধ্যে ফজল-এ-খোদার লেখা ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ শীর্ষক গানটি রয়েছে ১২তম স্থানে। এই গানে কণ্ঠ দিয়েছেন প্রয়াত শিল্পী আবদুল জব্বার। এর সুরকারও ছিলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর শোক: বরেণ্য গীতিকার ফজল-এ-খোদার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল রোববার এক শোক বার্তায় প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোক-সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর শোক: ফজল-এ-খোদার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। প্রতিমন্ত্রী এক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। শোকবার্তায় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, অসংখ্য কালজয়ী গানের ¯্রষ্টা ফজল-এ-খোদা তার সৃজনশীল কর্মের মধ্য দিয়ে সংগীতপ্রেমী মানুষের হৃদয়ে চিরকাল বেঁচে থাকবেন। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গীতিকবি ফজল-এ খোদার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এক শোক বিবৃতিতে তিনি মরহুমের পবিত্র আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবার-পরিজন, আত্মীয়-স্বজন, সহকর্মী, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

বিএনপির শোক: ফজল-এ-খোদার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স স্বাক্ষরিত এক শোকবার্তায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ফজল-এ-খোদাকে দেশের একজন গুণী ও বরেণ্য গীতিকার হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, তার রচিত অসংখ্য জনপ্রিয় গান আজও মানুষকে আবেগাপ্লুত করে। তার লেখা গান এতই জনপ্রিয় ছিল যে, গানের অনেক কথা মানুষের হৃদয়ে অমর হয়ে থাকবে। সাংস্কৃতিক অঙ্গনের বিশাল ভুবনে তিনি ছিলেন একজন কিংবদন্তি। তার মৃত্যু দেশের সঙ্গীত জগতের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি। আমি তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করছি। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শোকবার্তায় ফজল-এ-খোদার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোক-সন্তপ্ত পরিবার, গুণগ্রাহী, ভক্ত ও শুভাকাঙ্খীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

জাতীয় পার্টির শোক: গীতিকবি ফজল-এ খোদার মৃত্যুতে গভীর গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের। গতকাল রোববার এক শোকবার্তায় তিনি প্রয়াত ফজল-এ খোদার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। শোকবার্তায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, গীতিকবি ফজল-এ খোদার লেখা ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ গানটি বিবিসির জরিপে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাংলা গানের তালিকায় সেরা ২০ গানের মধ্যে ১২তম স্থান পেয়েছে। তার লেখা কালজয়ী এ গানটি একাত্তরে স্বাধীনতা বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে প্রচার হওয়ায় রণাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধারা দারুণভাবে উজ্জীবিত হয়েছিল। অসংখ্য জনপ্রিয় গান লিখে গীতিকবি ফজল-এ খোদা সমৃদ্ধ করেছেন বাংলা গানকে। বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত গীতিকার ফজল-এ খোদা দক্ষতার সঙ্গে বাংলাদেশ বেতারের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। শিশু সংগঠক ফজল-এ খোদা শিশুদের জন্য লিখেছেন অসংখ্য বই। গীতিকবি ফজল-এ খোদা দীর্ঘকাল বেঁচে থাকবেন তার কর্মের মধ্যে। ভাষাশহীদদের প্রতি বিন¤্র শ্রদ্ধায় লেখা কালজয়ী গান ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’এর গীতিকার, গীতিকবি ফজল-এ খোদার মৃত্যুতে একইভাবে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির আহ্বায়ক শেরিফা কাদের এবং জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির সদস্য সচিব আলাউদ্দিন আহমেদ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Theme Customized By Uttoron Host

You cannot copy content of this page