1. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০১:০১ পূর্বাহ্ন

জমজমাট লড়াইয়ের পর ম্যাচ পরিত্যক্ত

  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ৩১ মে, ২০২১
  • ২২৭ মোট ভিউ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ দুই ওপেনার ভালো শুরু এনে দেওয়ার পর দলকে পথ দেখালেন মাহমুদুল হাসান জয়। ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসে এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান ওল্ড ডিওএইচএসকে এনে দিলেন বড় সংগ্রহ। লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে গড়ে দিলেন জমজমাট লড়াইয়ের মঞ্চ। তবে সব উত্তেজনায় জল ঢেলে দিল বৃষ্টি। বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে সোমবার ৪ উইকেটে ১৭১ রান করে ওল্ড ডিওএইচএস। বৃষ্টির জন্য এরপর আর খেলা হয়নি।  টি-টোয়েন্টিতে প্রথম ফিফটির স্বাদ পান ২০ বছর বয়সী মাহমুদুল। এই সংস্করণে তার আগের সেরা ছিল অপরাজিত ৩১। এবার খেলেন ৫৫ বলে অপরাজিত ৭৮ রানের ইনিংস। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে আনিসুল ইসলাম ও রাকিব আহমেদের ব্যাটে ভালো শুরু পায় ওল্ড ডিওএইচএস। চার চারে ১৯ বলে ২৫ রান করা আনিসুলকে বোল্ড করে ৩৮ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন নাবিল সামাদ। দ্বিতীয় উইকেটে রাকিনের সঙ্গে মাহমুদুলের ৮১ রানের জুটিতে এগোতে থাকে ওল্ড ডিওএইচএস। রাকিনকে ফিরিয়ে বিপজ্জনক জুটি ভাঙেন সাব্বির রহমান। টি-টোয়েন্টি অভিষেকে ৩৩ বলে তিনটি চার ও দুই ছক্কায় রাকিন করেন ৪৬ রান। শুরুতে একটু সাবধানী ছিলেন মাহমুদুল। ১৩ ওভার শেষে ২৯ বলে তার রান ছিল ৩৩। পরে মুক্তার আলীকে ছক্কা মেরে রানের গতি বাড়ানোর শুরু। রায়ান রহমান ও প্রিতম কুমার দ্রুত ফিরলেও মাহমুদুলের ব্যাটে বড় সংগ্রহই গড়ে ওল্ড ডিওএইচএস। দুই ছক্কা ও ৭ চারে ৭৮ রানে অপরাজিত থাকেন মাহমুদুল। সাব্বির ও নাবিলের সঙ্গে একটি উইকেট পেয়েছেন রূপগঞ্জের পেসার মোহাম্মদ শহীদ। ঝড় বয়ে গেছে কাজী অনিকের উপর দিয়ে। বাঁহাতি এই পেসার ৪ ওভার ৫০ রান দিয়ে উইকেটশূন্য।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওল্ড ডিওএইচএস: ২০ ওভারে ১৭১/৪ (আনিসুল ২৫, রাকিন ৪৬, মাহমুদুল ৭৮*, রায়ন ১১, প্রিতম ৮, রকিবুল ২*; শহীদ ৪-০-৩৪-১, নাবিল ৩-০-২৭-১, অনিক ৪-০-৫০-০, মুক্তার ৪-০-২৭-০, সোহাগ ৩-০-২৩-০, সাব্বির ২-০-১০-১)।

ফল: ম্যাচ পরিত্যক্ত।

ব্রাদার্স ইউনিয়ন-প্রাইম দোলেশ্বর

বিকেএসপির চার নম্বর টুর্নামেন্টের মাঠে উদ্বোধনী দিনে ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও প্রাইম দোলেশ্বরের ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়ে গেছে। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ১২৭ রান করে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। এরপর বৃষ্টি নামলে আর খেলা সম্ভব হয়নি। দুই ওপেনারের ব্যাটে শুরুটা ভালো করেই ব্রাদার্স। মিজানুর রহমানের সঙ্গে জুনায়েদ সিদ্দিকের উদ্বোধনী জুটি ৫০ রানের জুটিতে গড়ে দেয় ভিত। দুটি করে ছক্কা ও চারে ২৩ বলে ৩১ রান করে মিজানুর আউট হলে শুরু হয় ব্রাদার্সের উল্টো যাত্রা। অনেকটা সময় ক্রিজে থাকলেও রানের গতিতে দম দিতে পারেননি জুনায়েদ। ৫০ বলে চারটি চার ও এক ছক্কায় ৪৮ রান করে কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে বোল্ড হন বাঁহাতি এই ওপেনার। ব্রাদার্সের প্রথম ছয় ব্যাটসম্যানের বাকি চারজন যেতে পারেননি দুই অঙ্কে। ঝড়ের আভাস দিয়েছিলেন আলাউদ্দিন বাবু। তবে এই অলরাউন্ডারকে ইনিংস বড় করতে দেননি রাব্বি। ১১ বলে দুই ছক্কা ও ১ চারে ২০ রান করে ফিরেন আলাউদ্দিন। অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার শরিফ উল্লাহ ২ উইকেট নেন ২৪ রানে। পেসার রাব্বিও ২ উইকেট নেন ২৪ রানে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ব্রাদার্স ইউনিয়ন: ১৮.৪ ওভারে ১২৭/৭ (মিজানুর ৩১, জুনায়েদ ৪৮, জসিম ২, মাইশুকুর ১, জাহিদ ১, রাহাতুল ৫, আলাউদ্দিন ২০, শাহজাদা ৫*, সুজন ৫*; শামী, ১-০-১২-০, রাজা ৪-০-২৪-১, শরিফউল্লাহ ৪-০-২৪-২, রাব্বি ৩.৪-০-২৪-২, ফরহাদ ৩-০-১৯-০, এনামুল জুনিয়র ৩-০-২১-১)।

ফল: পরিত্যক্ত।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Theme Customized By Uttoron Host

You cannot copy content of this page