1. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল মুক্তিযুদ্ধে পরাজয়ের প্রতিশোধ নেয়ার জন্য খোকসায়  ইউপি সদস্য গুলিবিদ্ধ, সাবেক চেয়ারম্যান গ্রেফতার জিয়াউর রহমান মুক্তিযোদ্ধা এটা আমরা মানি না খেজুরতলা পাটিকাবাড়ী হাইস্কুলে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে আলোচনা সভা কুষ্টিয়ায় সামাজিক প্রতিবন্ধী মেয়েদের প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে এক সাথে দুই নারীর বিবাহ সম্পন্ন এদেশের মাটিতে আর কোন চক্রান্ত হতে দেয়া হবে না শোকাবহ আগস্ট উপলক্ষে শহরের ৮নং ওয়ার্ডে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ দমনের দাবিতে ইবি ছাত্রলীগের বিক্ষোভ কুমারখালীতে আ.লীগের একাংশের বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ কুমারখালীতে জটিল রোগীদের মাঝে চেক বিতরণ

দুই কোচের সংস্পর্শে নিজেকে শাণিত করেছেন মিরাজ

  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ২৪ মে, ২০২১
  • ১৪০ মোট ভিউ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ একজন পারিবারিক কারণে এই সিরিজে নেই। আরেকজন এখন জাতীয় দল বা বিসিবি থেকেই বেশ দূরে। কিন্তু দুজনই মেহেদী হাসান মিরাজের কাছে আপনজন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ম্যাচ জেতানো বোলিংয়ের পর এই অফ স্পিনার বললেন, দেশের দুই কোচ নাজমুল আবেদীন ফাহিম ও সোহেল ইসলামের সংস্পর্শে নিজেকে শাণিত করেছেন তিনি। প্রথম ওয়ানডেতে রোববার ১০ ওভারে ৩০ রান দিয়ে মিরাজের প্রাপ্তি ৪ উইকেট। নতুন বল হাতে দলকে প্রথম ব্রেক থ্রু এনে দেন তিনি। পাওয়ার প্লের ভেতর ৪ ওভারে রান দেন মাত্র ১১। পরে দ্বিতীয় স্পেলে ফিরে ভেঙে দেন লঙ্কান ব্যাটিংয়ের মেরুদন্ড। প্রতিপক্ষের প্রথম ছয় ব্যাটসম্যানের চারজন তার শিকার। ম্যাচের পর প্রতিক্রিয়ায় মিরাজের কণ্ঠে উঠে এলো দেশের পরিচিত দুই কোচের কথা। বিসিবির কোচ সোহেল ইসলাম জাতীয় দলের স্পিন কোচ হিসেবে গিয়েছিলেন গত শ্রীলঙ্কা সফরে। এবার সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকার জন্য এই সিরিজে তাকে পাচ্ছে না দল। তবে মিরাজ তাকে ঠিকই পেয়েছেন কাছাকাছি। “ আমি তো বোলিং করছি নেটে এবং দেশের যে কোচ আছে আমার, তার সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ রাখার করি। খেলার আগে তার সঙ্গেই কথা বলেছি, কিভাবে কি করলে ভালো হয়-সোহেল স্যার।” “সোহেল স্যার সবসময় আমার সঙ্গে কাজ করেছেন। শ্রীলঙ্কায় করেছেন, দেশে ফেরার পরও। আমি সবসময় ওঁর সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করি।” মিরাজ বললেন আরেক কোচ নাজমুল আবেদীন ফাহিমের কথাও। দীর্ঘদিন বিসিবিতে কাজ করে এখন যিনি বিকেএসপির ক্রিকেট উপদেষ্টা। তবে যে কোনো বাংলাদেশের অনেক ক্রিকেটারের ভরসার জায়গা তিনি। মিরাজ জানালেন, দূরে থেকেও এই কোচ তাদের কতটা কাছের। “আরেকটা ব্যাপার যে, ফাহিম স্যার আমাকে ফোন করেছিলেন তিন-চার দিন আগে, তিনিও কথা বলেছেন। এর আগে যখন শ্রীলঙ্কায় টেস্ট ম্যাচ খেলছিলাম, তখন থেকেই তিনি আমার সঙ্গে বিভিন্ন রকম কথা বলছিলেন বোলিং নিয়ে এবং আমাকে অনুপ্রাণিত করছিলেন, কিভাবে কি করলে ভালো হয়।” “তারা আমাকে খুব ভালো গাইড করেছেন। আমি চেষ্টা করেছি, সেই গাইডলাইন মেনে করার জন্য।”

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Theme Customized By Uttoron Host
You cannot copy content of this page