1. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন

দেশকে আরো উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে

  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২
  • ১৪ মোট ভিউ

 

 

নিজ সংবাদ ॥ শোকাবহ আগস্টের ১৫তম দিন জাতীয় শোক দিবস। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার পাটিকাবাড়ি ইউনিয়নে খেজুর তলা  মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৫আগস্ট) বিকেল ৫টার দিকে পাটিকাবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ কর্তৃক আয়োজিত দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইদুর রহমান বিশ্বাস এবং সার্বিক পরিচালনা করেন ও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন  ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক চেয়ারম্যান সফর উদ্দিন। অনুষ্ঠান চলাকালীন হঠাৎ বৃষ্টি শুরু হয়, বৃষ্টিতে ভিজে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল হক। বিশেষ অতিথি ছিলেন, কুষ্টিয়া পৌর ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মীর রেজাউল ইসলাম বাবু, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জেবুন নেছা সবুজ, পাটিকাবাড়ি ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক জহুরুল ইসলাম, শহর ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ আফিল উদ্দিন, জেলা ছাত্র লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাদ আহমেদ ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুক্তার, শহর ছাত্র লীগের সাবেক আহবায়ক হাসিব কোরাইশী ও যুগ্ম আহবায়ক জাহিদুর রহমান পাভেল প্রমূখ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আতাউর রহমান আতা বলেন, ১৯৭৫ সালের এ মাসে বাঙালি জাতি হারিয়েছে তার হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পাশাপাশি হত্যা করেছে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবকে। তিনি আরো বলেন, সেদিন ঘাতকদের হাতে প্রাণ দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধুর সন্তান শেখ কামাল, শেখ জামাল, শিশু শেখ রাসেল সহ পুত্রবধূ সুলতানা কামাল ও রোজি জামাল। পৃথিবীর এই ঘৃণ্যতম হত্যাকা  থেকে বাঁচতে পারেননি বঙ্গবন্ধুর সহোদর শেখ নাসের, ভগ্নীপতি আব্দুর রব সেরনিয়াবাত, ভাগ্নে শেখ ফজলুল হক মনি, তার সহধর্মিণী আরজু মনি ও কর্নেল জামিলসহ পরিবারের ১৬ জন সদস্য ও আত্মীয়-স্বজন। সেদিন প্রানে বেঁচে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। বঙ্গকণ্যা প্রধানমন্ত্রী বেঁচে ছিলেন বলেই বাংলাদেশের উন্নয়ন হয়েছে। আওয়ামী লীগের উন্নয়ন দেখে বিএনপির হিংসা হয়। তাই শোককে শক্তিতে রুপান্তরিত করে দেশকে আরো উন্নত অগ্রযাত্রায় এগিয়ে নিতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি আরো বলেন, যে নেতার জন্ম না হলে আমরা স্বাধীনতা পেতাম না। আর সেই মহান নেতা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে। এর মত জঘন্যতম কাজ আর হয় না। যারা খুনের রাজনীতি করে তারা কখনো দেশের উন্নয়ন চাইবে না। তিনি উল্লেখ করে বলেন, তেলের দাম নিয়ে ঘাবড়ানোর কিছু নেই, বিশ্ব বাজারে তেলের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় বাংলাদেশে তেলের মূল্য বৃদ্ধি হয়েছে। আবার স্বাভাবিক হবে ইনশাআল্লাহ। তিনি বলেন, কিছুদিন আগে সয়াবিন তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছিলো, তা আবার স্বাভাবিক পর্যায়ে এসেছে। তেলের দাম বাড়া নিয়ে বিএনপি ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায়। আওয়ামী লীগ সরকার দেশের উন্নয়ন সহ মানুষের মঙ্গল চান। তাই আপনারা বিভ্রান্ত হবেন না। এসময় আতাউর রহমান আতা উপস্থিত সকলকে আগামী ১৮আগস্ট পাবলিক লাইব্রেরী মাঠে জেলা আওয়ামী লীগের শোকাবহ আগস্টের আলোচনা ও দোয়া মাহফিলে উপস্থিত থাকার আহব্বান জানান। শোককে শক্তিতে পরিনত করে দেশের উন্নয়নে সকলকে সামিল হওয়ার কথা জানান। আলোচনা শেষে ১৯৭৫ সালের ১৫আগস্টে যারা নিহত হয়েছে তাদের ও যারা দেশের জন্য লড়াই সংগ্রাম করে শহীদ হয়েছেন সকলের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Theme Customized By Uttoron Host
You cannot copy content of this page