1. admin@andolonerbazar.com : : admin admin
  2. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
শিরোনাম :
জিম্বাবুয়ে সিরিজের শুরুতে থাকবেন না সাকিব দক্ষিণ আফ্রিকায় ম্যান্ডেলা কাপে জিনাতের স্বর্ণ জয় বাংলাদেশের স্পিন বিভাগে পার্থক্য তৈরি করতে চান মুশতাক মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনার মধ্যে ইরানের রাষ্ট্রপতির পাকিস্তান সফর দেশের ইতিহাসে রেকর্ড ১৬ হাজার ২৩৩ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রথম ধাপের উপজেলা ভোট : ৭ চেয়ারম্যান ও ৯ ভাইস চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আমিরের বৈঠক: কাতারের কাছে দীর্ঘমেয়াদি জ্বালানি সহায়তা চায় বাংলাদেশ ফের তাপমাত্রা বাড়ার আভাস দেশি-বিদেশি চক্র নির্বাচিত সরকারকে হটানোর চক্রান্ত করছে : কাদের প্রধানমন্ত্রী ও কাতার আমিরের দ্বিপক্ষীয় বৈঠক, ১০ চুক্তি-সমঝোতা স্মারক সই

রমজানুল মোবারক : রমজান ইবাদতের মাস

  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ, ২০২৩

 

আ.ফ.ম নুরুল কাদের ॥ আল¬াহর আদেশ পালন যেমন ইবাদত, আল¬াহর নিষেধ বর্জনও তেমনি ইবাদত। সময়ের বিবেচনায় ইবাদতের বিশেষ কোনো মওসুম আছে কি? ইবাদত সর্বদা অর্থাৎ সারা বছরের, সব সময়েই ইবাদত করে যেতে হবে। ইবাদত দিনে ও রাতে, সকালে ও বিকেলে, আজ ও কাল, প্রতিদিন ও প্রতিক্ষণ; ইবাদত সর্বদা ও সর্বক্ষণ। আল¬াহ তায়ালার নির্দেশ মানাই তো ইবাদত। তাহলে আল¬াহর নির্দেশ কখনো মানব, কখনো মানব না; কোনো ক্ষেত্রে মানব, কোনো  ক্ষেত্রে মানব না- তা কি হয়! তা কি হতে পারে? নিশ্চয়ই না।তবে ইবাদতের একটা বিশেষ মওসুম আছে; তা হলো রমজান মাস। এ মাসে ইবাদতের ভালো বীজ বপন করতে পারলে ফসল বছরের অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে অধিক হয়, উৎকৃষ্ট মানের হয়! ফলন হয় ৭০ থেকে ৭০০ গুণ; এমনকি তারও বেশি! আবার এ মাসে এমন একটি রাত আছে হাজার মাসের ইবাদতের চেয়েও উত্তম (কদর : ৩)।

সব ইবাদতেরই উদ্দেশ্য বান্দাহর মধ্যে তাকওয়া অর্জন (বাকারা : ২১)। তবে রমজান মাসের রোজা ও তাকওয়ার সম্পর্ক অধিকতর ঘনিষ্ঠ ও সরাসরি (বাকারা : ১৮৩)। তাকওয়ার শাব্দিক অর্থ আল¬াহভীতি। প্রচলিত অর্থে তাকওয়া হলো এমন এক আত্মিক গুণ, যা মানুষকে আমলে সালেহ করতে উদ্বুদ্ধ করে, আগ্রহী করে, উৎসাহিত করে, অনুপ্রাণিত করে এবং যেসব কাজে আল¬াহ ও তাঁর রাসূলের নিষেধ রয়েছে সেগুলো করা থেকে বিরত থাকতে সহায়তা করে।

ইবাদতের আরেকটি উদ্দেশ্য হলো- মানুষের মধ্যে মানবিক গুণাবলি পয়দা করা। আর মানবিক গুণাবলি বলতে প্রধানত পবিত্র ও সুন্দর চিন্তা করা, ধৈর্য ও পরমত সহিষ্ণুতা অবলম্বন করা, আদল ও ইহসানের নীতি অনুসরণ করা, মানুষের কল্যাণ কামনা ও কল্যাণ সাধন করা, মানুষের সাথে সদা সদাচরণ ও সদ্ব্যবহার করা, হিংসাবিদ্বেষ ও পরশ্রীকাতরতা পরিহার করে চলা, সর্বতোভাবে সত্যাশ্রয়ী হয়ে চলা, ফিতনা-ফাসাদ বর্জন ও গর্ব-অহঙ্কার মুক্ত থাকা, মাত্রাতিরিক্ত লোভ-লালসা ত্যাগ করা, গিবত ও বুহতান না করার অভ্যাস গড়ে তোলা, লেনদেনে স্বচ্ছ থাকা, কথা ও কাজে মিল রাখা, সব ধরনের জুলম-অত্যাচার থেকে নিজেকে সংযত রাখা।

বর্তমান দুনিয়ায় মুসলিম জনগোষ্ঠীর সংখ্যা ১৬০ কোটি। এদের মধ্যে অনেকে আছে যাদের এক আল¬াহতে ও আখিরাতে বিশ^াসই নেই। ফলে উলি¬খিত ইবাদতের চাষবাসে তাদের কোনো প্রকার ইচ্ছা-আগ্রহ বলেও কিছুই নেই। অর্থাৎ তাদের ইবাদতকারী হিসেবে গণ্যই করা চলে না। অনেক মুসলিম আছে যারা কিছু কিছু ইবাদতের চাষ করে বটে, কিন্তু তাদের ইবাদতের বীজগুলোই হয়তো বা পোকায় খাওয়া। অনেকে আছে যারা তাদের ইবাদতের জমিকে ভালোভাবে খননই করে না, অনেকে তাদের ইবাদতের ক্ষেতে সেচের ব্যবস্থা করে না। আবার অনেকে এমন আছে যারা ক্ষেতের আগাছাগুলো সাফ করে না। ফলে তাদের ইবাদত নামীয় ফসলটি নানাবিধ রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত।

আল¬াহ বলেন, ‘রোজা আমার জন্য, আর রোজার পুরস্কার আমি নিজেই দেবো।’ সব ইবাদতের পুরস্কারের মালিকই তো হলেন স্বয়ং আল¬াহ রাব্বুল আল-আলামীন। তাহলে রোজার পুরস্কারের কথা আলাদা করে বলার তাৎপর্য কী? এর কারণ হলো-  রোজা এমন একটি ইবাদত যা একমাত্র আল¬াহ ছাড়া অন্য আর কেউ জানতে পারে না, যদি না সে তাকে জানায়। তাই রোজা নামক আমলটি একমাত্র আল¬াহ তায়ালার সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে পালন করা হয়।

আল¬াহর রাসূল সা: বলেন : ‘রোজা ঢালস্বরূপ’, যা সব ধরনের গুনাহের কাজ থেকে  রোজাদারকে রক্ষা করে। যুদ্ধক্ষেত্রে ঢাল যেমন যোদ্ধাকে শত্র“র আক্রমণ থেকে রক্ষা করে, রমজান মাসের রোজাও তেমনি রোজাদারকে সব ধরনের অপকর্ম থেকে  হেফাজত করে। কারণ রোজাদারের জন্য শিক্ষাই হলো জরুরি প্রয়োজন ছাড়া অনর্থক কথা না বলা, কখনো বলতে হলে সত্য ও ন্যায় কথা বলা, দিনরাত যথাসাধ্য আল¬াহ তায়ালার ধ্যানে মগ্ন থাকা, আখিরাতে নাজাতের চিন্তায় মশগুল থাকা, অন্যের কঠোর কথার জবাবও নরম ভাষায় দেয়া, সবার জন্য পবিত্র ও সুন্দর চিন্তা করা, অন্যের কল্যাণে আনন্দিত হওয়া, অন্যের প্রতি আদল ও ইহসান করা, সব ধরনের অন্যায়, অসত্য ও অশালীন কাজ থেকে বিরত থাকা; এসব বৈশিষ্ট্যই রোজাদারের জন্য ঢাল হিসেবে কাজ করে; রোজাদারকে সব ধরনের গুনাহ থেকে বাঁচিয়ে রাখে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Site Customized By NewsTech.Com