1. admin@andolonerbazar.com : : admin admin
  2. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
শিরোনাম :
সন্ত্রাসী কার্যক্রম করে কেউ টিকে থাকতে পারবেন না : কামারুল আরেফিন এমপি  মায়ের ভাষার অধিকার ও রাষ্ট্র্রভাষা প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম ছিল বীর বাঙালি জাতির বীরত্বের গৌরবগাঁথা অধ্যায় : ডিসি এহেতেশাম রেজা ২১ কিমি দৌড়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ ইবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত মেহেরপুরে অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস : কুষ্টিয়ায় সমকাল সুহৃদ সমাবেশের আয়োজনে চিত্রাঙ্কন ও কুইজ প্রতিযোগিতা কুমারখালীতে যথাযথ মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কুষ্টিয়া জেলা সমিতি ইউ.এস.এ ইনকের মহান একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন আলমডাঙ্গায় যথাযথ মর্যাদায় আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কালুখালীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

রোহিত ভাইয়েরটা ছিল আমার স্বপ্নের উইকেট : তানজিম

  • সর্বশেষ আপডেট : শুক্রবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

 

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ এশিয়া কাপের দলেই জায়গা পাওয়ার কথা ছিল না। এবাদত হোসেনের ইনজুরি তানজিম সাকিবের জন্য খুলে দেয় দরজা। এরপর পুরো টুর্নামেন্টই কেটেছে বেঞ্চে বসে। অনেকটা ‘মূল্যহীন’ হয়ে পড়া শেষ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে অভিষেক হয় তানজিম হাসান সাকিবের। তিনি অবশ্য প্রথম ম্যাচেই নজর কেড়েছেন সবার।  ব্যাট হাতে ৮ বলে ১৪ রান করেন। পরে বল হাতে বাংলাদেশকে শুরুতেই এনে দেন দুই উইকেট। এর মধ্যে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় বলেই ফেরান রোহিত শর্মাকে। তার বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে কাভার পয়েন্টে দাঁড়ানো এনামুল হক বিজয়কে ক্যাচ দেন ভারতীয় অধিনায়ক। সবমিলিয়ে ৭ ওভার ৫ বল হাত ঘুরিয়ে ২ উইকেট নেন তানজিম সাকিব।  নিজের অভিষেক ম্যাচ নিয়ে ব্রডকাস্টারদের দেওয়া সাক্ষাৎকারে তানজিম সাকিব বলেন, ‘রোহিত ভাইয়ের উইকেটটা ছিল আমার কাছে স্বপ্নের উইকেট। আমার ক্যারিয়ারের প্রথম উইকেট। আমি কেবল বল ঠিক লাইন ও লেন্থে বল করায় মনোযোগ দিয়েছি। এটা ঠিক রাখার চেষ্টা করেছি। এজন্য আমি তাড়াতাড়ি সাফল্য পেয়েছি। ’ অভিষিক্ত তানজিমের কাঁধে এসেছিল ইনিংসের শেষ ওভার করার দায়িত্বও। প্রথম দুই বলে ডট দেন তানজিম। কিন্তু তৃতীয় বলেই তাকে চার হাঁকান মোহাম্মদ শামী। কিন্তু পরের বলে দারুণ এক ইয়র্কার করেন, পরে অবশ্য রান আউট হয়ে যান শামী। ওই বল ও প্রথম স্পেলে টানা ছয় ওভার করা নিয়েও কথা বলেন তানজিম।  তিনি বলেন, ‘আমি সবসময় মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকি লম্বা স্পেল করার জন্য। যখন আমার দলের লম্বা স্পেল দরকার হয়। আমি সবসময় প্রস্তুত থাকি। অনুশীলনেও নিজেকে সেভাবেই তৈরি করি। ’ ‘ওই বলে আমি আবার স্লোয়ার দেওয়ার চিন্তা করেছিলাম। কিন্তু এটা খুব কাছাকাছি ম্যাচ ছিল, দুই বলে আট রান দরকার ছিল। আমার বিশ্বাস ছিল পারফেক্ট ইয়র্কার করতে পারবো। সেটাই হয়েছে। আমরা দেশে ফিরে যাচ্ছি ভারতের বিপক্ষে বড় একটা জয় নিয়ে। আমার জন্য খুব ভালো অনুভূতি। ’

Please Share This Post in Your Social Media

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Site Customized By NewsTech.Com