1. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০৫:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আশঙ্কাজনক হারে করোনা সংক্রমণ বাড়লেও সেবার জন্য প্রস্তুত নয় হাসপাতালগুলো করোনায় ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৯৭ চন্দ্রিমা ব্যাডমিন্টন ক্লাবের সভাপতি জাকির, সম্পাদক মুন্সী তরিকুল বুয়েটে ভর্তির সুযোগ পেয়ে কোথায় পড়বে জানেনা আবরার ফাহাদের ছোট ভাই কুষ্টিয়ায় প্রতিমা বিসর্জনের সময় পানিতে ডুবে যুবকের মৃত্যু রথে চাঁদার টাকা না দেয়ায় দোকান ভাংচুর ও উচ্ছেদ বিচ্ছু বাহিনীর দৌলতপুরে পদ্মা নদী থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার পোড়াদহে খুলনা রেলওয়ে জেলার ২য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা মহানবী (সঃ) ও তার সহধর্মীনিকে কুটক্তি করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ রোটারি ক্লাব অব কুষ্টিয়া সেন্ট্রালের সভাপতির দায়িত্বভার নিলেন প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম

সুখি-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে রবীন্দ্রনাথ বাঙালির আলোকবর্তীকা

  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ৮ মে, ২০২২
  • ৬ মোট ভিউ

 

আরিফ মেহমুদ ॥ বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পীকার ড.শিরিন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, অতুলনীয় প্রতিভার অধিকারী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাংলা সাহিত্যের প্রতিটা অঙ্গনে মেধার স্বাক্ষর রেখেন। তিনি একজন মানবতাবদী বিজ্ঞানমনোস্ক ও অসম্প্রদায়ীক আধুনিক চেতনার মানুষ হিসেবেও বিশে^জুড়ে নন্দিত। বাঙালি ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সাথে কবিগুরু নিবিড়ভাবে মিশে আছেন তাঁর রচিত এসো হে বৈশাখ গান দিয়েই বাংলা নববর্ষকে বরণ করা হয়। বাংলার রূপ-বৈচিত্র্য, প্রকৃতি, মানবজীবন সবকিছুকেই তিনি তাঁর প্রতিভার আলোকে উদ্ভাসিক করেছেন। আজকের এই হানা-হানির অস্থির পৃথিবীতে রবীন্দ্রনাথের অসম্প্রদায়িক মানবতার শিক্ষা বড়ই প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। সাম্প্রদায়িক বিভেদ ভূলে রবীন্দ্রনাথ আমাদের সততই অসম্প্রদায়িক হতে উদ্বুদ্ধ করেছেন। তিনি আমাদের সামাজিত বৈষম্য দুর করতে  প্রেরণা যুগিয়েছেন। তাই একটি সংস্কৃতিবান্ধব ও সুখি-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে রবীন্দ্রনাথ আমাদের সামনে সতত আলোকবর্তীকা হিসেবে দেদীপ্যমান। গতকাল রবিবার বিকেলে বাংলা সাহিত্য সৌধের কালজয়ী প্রতিভা বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কবির স্মৃতিবিজড়িত কুষ্টিয়ার শিলাইদহ কুঠিবাড়ীতে জাতীয় পর্যায়ে ও কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের আয়োজন ৩দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খলিদ এমপি’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব আবুল মনসুর। স্মারক বক্তব্য দেন প্রফেসর সনৎ কুমার সাহা। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া-৪ (খোকসা-কুমারখালি) আসনের এমপি ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জজ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করবেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ সাইদুল ইসলাম। স্পীকার ড.শিরিন শারমিন চৌধুরী আরো বলেন, রবীন্দ্রনাথ আধুনিক ও স্বদেশী হবার যে প্রেরণা পেয়ের্ছিলেন, তা এই শিলাইদহ থেকেই। শিলাইদহের অপরূপ প্রাকৃতিক পরিবেশ রবীন্দ্রনাথকে বার বার এখানে ফিরে আসতে আকৃষ্ট করেছে। তিনি তৎকালিন সময়ের জাতি ভেদা-ভেদ ভূলে এই এলাকার মানুষের মধ্যে সম্প্রীতির বন্ধন সৃষ্টি করেছেন। শিলাইদহের প্রভাব রবীন্দ্রনাথের সাহিত্যে, সৃষ্টিকর্মে দখল করে রয়েছে। রবীন্দ্রনাথের কারনেই বিশে^ আজকের শিলাইদহ বিখ্যাত। রবীন্দ্রনাথের হাতেই শিলাইদহের নিভৃত পল্লীর কথা তাঁর প্রখ্যাত সব ছোট গল্পে উঠে এসেছে। স্পীকার আরো বলেন, মানবতাবাদী রবীন্দ্রনাথ সব সময়ই মনুষ্যত্বের পক্ষেই সরব থেকেছেন। সংকীর্ণতার অন্ধকার থেকে তিনি মানুষকে মুক্তির পথে আহবান জানিয়েছেন। তানা তাঁর প্রবন্ধ আর কবিতায় জাতির সংকট মোচনে এক মহামানবের আগম প্রত্যাশা করেছিলেন। বাঙালি জাতি তথা উপমহাদেশের ক্রান্তিলগ্নে ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ  হন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঙ্গবন্ধুই বাঙালি  জীবনে সেই মহামানব, যিনি আজ সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি হিসেবে স্বীকৃত। বঙ্গবন্ধু বাঙালির চিন্তা-চেতনা ও অনুভূতিকে সার্থকভাবে প্রতিফলিত করেন। কবিগুরু রচিত আমার সোনার বাংলা,আমি তোমায় ভালবাসি গানটিকে বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীতের মর্যাদা দিয়েছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি আরো বলেন,রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন একজন শ্রেষ্ঠ সমাজ সংস্কারক। সমাজের বিভিন্ন অনাচার,অবিচার তিনি তাঁর লেখনিতে ফুটিয়ে তুলেছেন। তাঁর প্রতিবাদী সত্বা নিপিড়ন অন্যায়ের বিরুদ্ধে ছিল সদা সচ্চার। প্রতিবাদী সত্বার পাশাপাশি সহমর্মিতা সহ ব্যাদনার ধারা সমানভাবেই বয়ে যেতো। আমরা প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম একদিন হারিয়ে যাবে।

আবার নবীনরা এসে সেই জায়গা দখল করে নিবে ভেবেই কবি নতুনেরে ডাক দিয়ে গেছেন। তিনি বলেন, রবীন্দ্রনাথ বাঙালির চিন্তা, মনন, চেতনার গভীরে এবং সত্বার সাথে মিশে আছে। রবীন্দ্রনাথ নারী অধিকার আদায়ের প্রবক্তা ছিলেন। নারী অধিকারের ব্যাপারে তিনি সেই সময় তাঁর লেখনিতে কথা বলেছেন। চিত্রাঙ্গদা নাটক তারই চিত্র।  কবিগুরুর চেতনা ও দর্শন আমাদের সৃষ্টিকর্মের অফুরন্ত প্রেরণা হিসেবে অগ্রযাত্রার উৎস হয়ে  থাকবে অনন্তকাল। রবীন্দ্রচর্চা ও গবেষনা আজ সমগ্র বিশ^ই ছড়িয়ে পড়েছে। তাই তরুণ প্রজন্মের প্রতি আমার আহবান তোমরা রবীন্দ্রনাথকে আরো গভীরভাবে অধ্যায়ন করবে আরো বেশি বেশি জানার চেষ্টা করবে এবং তাঁর সেই লেখনি থেকে অনেক আশার সঞ্চার হবে। যেটা আমাদের অনেক সংকট কাটিয়ে উঠতে সহায়তা করবে। সামনের দিকে আশার পথ দেখাবে। দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে আমরা যেন জাতির জনকের সোনার বাংলা বিনির্মানে এক সাথে কাজ করতে পারি।  বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কুষ্টিয়া-৪ (খোকসা-কুমারখালী) আসনের এমপি ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জর্জ বলেন, বহুমাত্রিক রবীন্দ্রনাথকে আমি অন্য এক নান্দনিক অহংকারে হৃদয়ে ধারন করি। কারন যে দেশের ধুলা মাটিতে পায়ের চিহ্ন এতে রবীন্দ্রনাথ জীবনের অনেকখানি সময় অতিবাহিত করেছেন আমি সেই মাটিতেই জন্মেছি। সাহিত্য সংস্কৃতির খ্যাত কুষ্টিয়া এবং কুমারখালি থানা তার সুতিকাগার। তাই হৃদয়ে সবটুকু প্রেম ভালবাসা উজাড় করে যে মৃত্রিকায় রবীন্দ্রনাথ গীতাঞ্জলী রচনা করেছিলেন সেই গৌরবে রবী ঠাকুর হয়ে উঠেছে বিশ^ নন্দিত। আমার শতসহ¯্র শ্রদ্ধা তাঁর চরণে। এমপি ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জর্জ বলেন, বছরের পর বছর আমরা রবীন্দ্রনাথের জন্ম দিন পালন করে দায় এড়িয়ে যায় সারা বছর আরেকটি বারের জন্যেও মনে করি না আমাদের রবীন্দ্রনাথ নির্জন পাড়া গাঁয়ের জঙ্গলে একাই জেগে আছে। কেবল মাত্র তাঁকে স্মরণ করি স্মরণীয় দিবেস। কিছু কাজ আমাদের জাতিয়ভাবে দায়িত্বের মধ্যে এসে পড়ে সেগুলোকে বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন। নতুন প্রজন্মকে রবীন্দ্র অনুরাগী করে তুলতে হবে। সকল শিক্ষা যেন রবীন্দ্রনাথের মত মানবিক শিক্ষা কার্যক্রমের আওতায় ধাবিত হয় এবং ভাল মানুষ তৈরি করতে রবীন্দ্র চর্চার প্রসার ও বিস্তৃতি ঘটাতে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে উদ্যোগ গ্রহন অবশ্যই প্রয়োজন সেদিকে আমাদের দৃষ্টি দিতে হবে আন্তরিক ভাবে।  রবীন্দ্রনাথ জয়ন্তী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আলোচনার শুরুতেই জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশেন করেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত বিশিষ্ট রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী প্রফেসর ড.রেজোয়ানা চৌধুরী বন্যা ও তাঁর সুরের ধারা সঙ্গীত বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা। এছাড়াও অনুষ্ঠানে ভারত থেকে আগত রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী বিশ^রূপ রুদ্র ও তন্ময় মুখার্জি। কুষ্টিয়া জেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীরা সহ বিভিন্ন সংস্কুতি সংগঠনের শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশন কবিতা আবৃত্তি ও নাটক মঞ্চায়ন করেন। অনুষ্ঠান চলে গভীর রাত পর্যন্ত।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Theme Customized By Uttoron Host
You cannot copy content of this page