1. admin@andolonerbazar.com : : admin admin
  2. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :

১২ ঘন্টা বিদ্যুৎহীন দৌলতপুর : জনজীবন ছিল দূর্ভোগে

  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২৪

 

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে প্রায় ১২ ঘন্টা বিদ্যুৎ ছিল না। ফলে দৌলতপুরবাসীর দূর্ভোগে কেটেছে একটি দিন। শীতকাল হওয়ায় অসহনীয় গরম থেকে রক্ষা পেলেও বিদ্যুৎ নির্ভর অসংখ্য পরিবার ছিল চরম অস্বস্থি, দুঃশ্চিন্তা ও কষ্টে। যে সকল পরিবার বিদ্যুৎ নির্ভর রান্না খাওয়া তাদের কেটেছে খেয়ে না খেয়ে অথবা আধাপেটা খেয়ে। এমনকি যারা রান্নার জ্বালানি চুলাহীন বসবাস বা জীবন যাপন করেন তাদেরও একই অবস্থায় দিন কেটেছে। সবচেয়ে শিশুদের খাওয়া দাওয়া নিয়ে সংকটে দিন কাটে তাদের। যদিও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি শুক্রবার মাইকিং করে গতকাল শনিবার দৌলতপুরে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ থাকবেনা এমন ঘোষণা দিয়েছিলেন। ঘোষণার প্রথম শর্তটি অর্থাৎ সকাল ৮টার শর্তটি যথাযথ পালন করা হলেও দ্বিতীয় শর্তটি ছিল অপূরণীয়। অর্থাৎ বিকেল ৫টার পরিবর্তে দৌলতপুর সদরে বিদ্যুৎ আসে বা সরবরাহ হয় রাত প্রায় ৮টার দিকে। কিন্তু প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহ হয় আরো পরে। তারা অবশ্য ১২ ঘন্টারও বেশী সময় বিদ্যুৎহীন কাটিয়েছেন। অবশ্য কতৃপক্ষ এরজন্য দায়ী নয়, কারণ ভেড়ামারা বিদ্যুৎ ষ্টেশন যেখান থেকে দৌলতপুরে বিদ্যুৎ সরবরাহ হয়ে থাকে সেই ষ্টেশন রক্ষনাবেক্ষণ ও পরিচ্ছন্নতার জন্য বিদ্যুতের লাইন অফ ছিল। তাই তাদের রক্ষনাবেক্ষণ ও পরিচ্ছন্নতার কাজ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ না হওয়ায় দিন গড়িয়ে প্রায় ১২ ঘন্টা পর রাতে বিদ্যুতের দেখা মিলে। যান্ত্রিক জনজীবন বিদ্যুৎহীন থাকায় তারা পড়ে যন্ত্রনায়। দিনের গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ প্রেরণের ক্ষেত্রেও চরম বিড়ম্বনায় পড়েন গণমাধ্যমকর্মীরা। তারা বার বার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির দৌলতপুরের কতৃপক্ষকে ফোন করে বিরক্তের কারণ হোন। ভবিষ্যতে এমনটি যাতে না হয় সে দিকটি খেয়াল রাখার জন্য বিদ্যুৎ নির্ভর দৌলতপুরবাসী সবিনয় দৃষ্টি কামনা করেছেন সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের প্রতি।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Site Customized By NewsTech.Com