1. andolonerbazar@gmail.com : AndolonerBazar :
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আশঙ্কাজনক হারে করোনা সংক্রমণ বাড়লেও সেবার জন্য প্রস্তুত নয় হাসপাতালগুলো করোনায় ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৯৭ চন্দ্রিমা ব্যাডমিন্টন ক্লাবের সভাপতি জাকির, সম্পাদক মুন্সী তরিকুল বুয়েটে ভর্তির সুযোগ পেয়ে কোথায় পড়বে জানেনা আবরার ফাহাদের ছোট ভাই কুষ্টিয়ায় প্রতিমা বিসর্জনের সময় পানিতে ডুবে যুবকের মৃত্যু রথে চাঁদার টাকা না দেয়ায় দোকান ভাংচুর ও উচ্ছেদ বিচ্ছু বাহিনীর দৌলতপুরে পদ্মা নদী থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার পোড়াদহে খুলনা রেলওয়ে জেলার ২য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা মহানবী (সঃ) ও তার সহধর্মীনিকে কুটক্তি করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ রোটারি ক্লাব অব কুষ্টিয়া সেন্ট্রালের সভাপতির দায়িত্বভার নিলেন প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম

৩দিনব্যাপী কুষ্টিয়ার শিলাইদহে শুরু হচ্ছে কবি গুরুর ১৬১ তম জন্মবার্ষিকীর জাতীয় পর্যায়ের অনুষ্ঠান

  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ৭ মে, ২০২২
  • ২২ মোট ভিউ

 

আরিফ মেহমুদ ॥ পঁচিশে বৈশাখ বাংলা সাহিত্য সৌধের কালজয়ী প্রতিভা বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কুষ্টিয়ার শিলাইদহ কুঠিবাড়ীতে জাতীয় পর্যায়ে ও কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসন ৩দিন ব্যাপী আয়োজন করেছে নানান অনুষ্ঠানমালা। জাতীয় পর্যায়ের মূল আয়োজন এনিয়ে দ্বিতীয় বার অনুষ্ঠিত হচ্ছে। জাতীয় পর্যায়ের মূল আয়োজনকে ঘিরে কুষ্টিয়ার শিলাইদহকে সাজানো হয়েছে বর্ণিল সাজে। ঢাকার বাইরে কুষ্টিয়ার শিলাইদহেই এবার জাতীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হবে মূল অনুষ্ঠান। জেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠানমালার বাইরেও এখানে বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে বসেছে গ্রামীণ মেলা। ৪দিন ব্যাপী চলবে এই গ্রামীণ মেলা। কবি পদধুলির শিলাইদহ কুঠিবাড়ীতে হাজার-হাজার মানুষের ঢল নামবে। লাখো মানুষের মিলন মেলায় পরিনত হবে ঠাকুর বাড়ীর চত্বর। নানান নাটকিয়তার পর ঠাকুর বাড়ীর ঐতিহ্যবাহী মেরুন রং ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে। যার কারনে কুঠিবাড়ির দেয়ালের আস্তরন রঙ্গে ঝলমল করছে। জাতীয় পর্যায়ে তিনদিনব্যাপী রবীন্দ্র আয়োজনের প্রধান অতিথি হিসেবে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের মাননীয় স্পীকার ড.শিরিন শারমিন চৌধুরী এমপি। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খলিদ এমপি’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব আবুল মনসুর। স্মারক বক্তব্য রাখবেন প্রফেসর সনৎ কুমার সাহা। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি বেগম সিমিন হোসেন রিমি এমপি। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করবেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ সাইদুল ইসলাম।

২য়দিনের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি। রবিবার থেকে মঙ্গলবার তিনদিন দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত চলবে রবীন্দ্র আলোচনা সভা। এছাড়া রাত ১১টা পর্যন্ত মুক্ত মঞ্চে চলবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।  মহামারী করোনার কারনে টানা ২বছর পর উৎসবকে সাফল্য করতে এবার থাকছে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা। শিলাইদহ কুঠিবাড়ীতেই বসে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর গীতাঞ্জলী অনুবাদ করে পেয়েছেন নোবেল পুরুস্কার। এখানে বসে বলাকা, নৌকা ডুবিসহ রচনা করেছেন বিখ্যাত উপন্যাস, গল্প,। অপরদিকে‘ আমার হিয়ার মাঝে লুকিয়ে আছে দেখতে আমি পাইনি, এমন প্রায় ৩৬ শ গানের বেশির ভাগ রচনা করেছেন এখানে বসেই। তাই প্রতি বছরের ন্যায় এবারও তিনদিনব্যাপী রবীন্দ্র জন্মবার্ষিকীতে রবীন্দ্র প্রেমীদের ভিড়ে মুখোরিত হয়ে উঠবে শিলাইদহ। রবীন্দ্র গবেষক ড.সরোয়ার মোর্শেদ জানান, কুষ্টিয়ার শিলাইদহ রবীন্দ্রনাথকে বিশ্বকবির মর্যাদায় আসীন করেছিল। এখানকার পদ্মার প্রবাহমান সৌন্দর্য ও শিলাইদহের সবুজ বনানী রবীন্দ্রনাথের বিখ্যাত রচনাবলিকে সমৃদ্ধ করেছিল। আজ সেই শিলাইদহ যেন রবীন্দ্রনাথকে হাত ছানি দিয়ে ডাকছে। তাই দেশের যেখানেই বিশ্বকবির জন্মবার্ষিকী উদযাপিত হোক না কেন শিলাইদহের উদযাপনটা একটু ভিন্ন মাত্রার। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের দাদা প্রিন্স দ্বারকানাথ ঠাকুর ১৮০৭ সালে এই অঞ্চলের জমিদারি পান। পরবর্তী সময়ে ১৮৮৯ সালে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শিলাইদহে জমিদার হয়ে আসেন। এখানে শিলাইদহে তিনি ১৯০১ সাল পর্যন্ত জমিদারী পরিচালনা করেন। এখানে অবস্থানকালে তিনি রচনা করে তার বিখ্যাত গ্রন্থ সোনার তরী, চিত্রা, চৈতালীসহ আরও বিভিন্ন গ্রন্থ। রবীন্দ্রনাথ শিলাইদহে বসেই গীতাঞ্জলী কাব্য গ্রন্থের অনুবাদের কাজ শুরু করেন।

পরে ১৯১৩ সালে গীতাঞ্জলী গ্রন্থের অনুবাদে সাহিত্যে প্রথম নোবেল পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি। এখানে বসে রচনা করা বিশ্বকবির অসংখ্য গান, কবিতা ও সাহিত্যকর্ম বাঙলা সাহিত্যকে করেছে সমৃদ্ধ। তাই রবীন্দ্র সাহিত্যে শিলাইদহের গুরুত্ব অন্যতম। এবছর স্থায়ীভাবে নির্মিত মঞ্চে চলবে কবিগুরুর সাহিত্য ও শিল্পজীবন নিয়ে আলোচনা, গান ও কবিতা। এখানে এসে কবিগুরুর শিল্প ও সাহিত্যকর্ম ব্যক্তিজীবনে অনুপ্রেরণা যোগায় এমনটায় মনে করেন রবীন্দ্র ভক্ত ও দর্শনার্থীরা। সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতা ও কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবার জাতীয়ভাবে উদযাপিত হতে যাচ্ছে রবীন্দ্র জয়ন্তী। সে আয়োজনকে সফল করতে প্রতœতত্ত্ব বিভাগ সকল প্রস্তুতি প্রায় শেষ করেছে। এব্যাপারে শিলাইদহ রবীন্দ্র কুঠিবাড়ির কাস্টোডিয়ান মুখলেছুর রহমান ভুইয়া জানান, বিশ্বকবির ১৬১তম জন্ম জয়ন্তী উপলক্ষে প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তর ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এবং জেলা প্রশানের উদ্যোগে জানা মতে দ্বিতীয়বারের মতো শিলাইদহ কুঠি-বাড়িতে জাতীয়ভাবে অনুষ্ঠান হতে যাচ্ছে। এই বিষয়টা সামনে রেখে শিলাইদহ কুঠি-বাড়ির পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতাসহ যে সকল কাজ আছে সেগুলো শেষ পর্যায়ে রয়েছে। নিদিষ্ট সময়ের মধ্যেই সকল কাজ শেষ হয়ে যাবে।এ বিষয়ে কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিতান কুমার মন্ডল বলেন, গত দুই বছর কোভিট আক্রান্ত ছিলো সারাবিশ্ব এই সময়ে অফিশিয়াল কোনো আয়োজনই হয়নি। এবার কবিগুরুর স্মৃতি বিজড়িত শিলাইদহে জাতীয়ভাবে বিশ্বকবির ১৬১তম জন্ম জয়ন্তী উদযাপন করা হবে। বৈশাখ মাস এই মাসে ঝর কালবৈশাখীর সম্ভাবনা থাকে তবে আমরা সমস্ত প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করেছি। এব্যাপারে গতকাল শনিবার বিকেল ৫টায় কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ সাইদুল ইসলাম শিলাইদহ কুঠিবাড়িতে গণমাধ্যম কর্র্মীদের সাথে এক প্রেস বিফিং করে বিস্তারিত তুলে ধরেন। এসময় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেন, জাতীয় পর্যায়ে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা প্রশাসক কুষ্টিয়া আয়োজনে এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এই বিষয়ে ইতিমধ্যে আমরা প্রস্তুতিমূলক সভা সম্পন্ন করেছি এবং সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে কোর কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানে আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ সহ রবীন্দ্র ভক্ত অনুরাগী যারা আসবেন তাদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। আশা করি সবাই অত্যন্ত সুন্দর এবং আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে পারবেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম রবীন্দ্র ভক্ত অনুরাগী সবাইকে অনুষ্ঠানটি উপভোগ করার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ জানান। প্রেস বিফিং-এ পুলিশ সুপার মোঃ খাইরুল আলম জানান, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় পর্যায়ের সব থেকে বড় অনুষ্ঠান এবার কুষ্টিয়াতে অনুষ্ঠিত হবে। আগত সকলের নিরাপত্তার লক্ষ্যে আমরা ইতিমধ্যে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সকল অফিসারদের নিয়ে মিটিং করেছি। সেখানে কার কি দায়িত্ব তা বন্টন করে দেওয়া হয়েছে। আগত ভিভিআইপি অতিথি সহ সকল জনসাধারণ নির্বিঘেœ চলাফেরা করতে পারেন ইতিমধ্যে তা নিশ্চিত করা হয়েছে । কুঠিবাড়ীর কাস্টডিয়ান মুখলেছুর রহমান জানান, কুঠিবাড়ীর ভেতরে মঞ্চ নির্মাণসহ শেষ মুহুর্তে চলছে আগাছা, ঘাস পরিস্কারসহ ধুয়া-মোছার কাজ। উৎসবকে ঘিরে কুঠিবাড়ীর বাইরে চলছে তিনদিন ব্যাপী রবীন্দ্র মেলার প্রস্তুতি। কদিন আগেই দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে দোকানীরা এসে দোকান নির্মাণে ব্যস্ত সময় পার করছে। আগত দোকানীরা জানান যদি প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হয় তাহলে মেলায় এবার ভালো কেনাবেচা হবে। এবারের রবীন্দ্রনাথ জয়ন্তী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করবেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত বিশিষ্ট রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী প্রফেসর রেজোয়ানা চৌধুরী বন্যা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
© All rights reserved ©2021  Daily Andoloner Bazar
Theme Customized By Uttoron Host
You cannot copy content of this page